মিশরের রাণী ক্লিওপেট্রার মৃত্যু হয় গোখরা সাপের কামড়ে!

নারীর নাক সৌন্দর্য বর্ণনায় মিশরের রাণী ক্লিওপেট্টার উদাহরণ টানা হয়ে থাকে। সেই রাণীর মৃত্যু নিয়ে কথিত আছে রাণী ক্লিওপেট্রা খৃষ্টপূর্ব ৩০ সালে মাত্র ৩৯ বছর বয়সে গোখরা সাপের কামড়ে মারা যান।

রোমান সূত্র থেকে শুরু করে পরবর্তীতেও বলা হয় বিষাক্ত সাপের কামড়ে রানী ক্লিওপেট্রার মৃত্যু হয়। কথিত আছে ক্লিওপেট্রা আত্মঘাতী হয়েছিলেন বিষাক্ত ওই সাপ দিয়ে নিজের গায়ে ছোবল মারিয়ে।

কিন্তু ম্যানচেস্টার যাদুঘরের মিশর বিষয়ক দুই বিশেষজ্ঞ জয়েস টিলডেসলি এবং অ্যান্ড্রু গ্রে বলছেন বিষাক্ত ওই ছোবলের জন্য যে গোখরা সাপকে দায়ি করা হয় ফলের ঝুড়িতে লুকিয়ে থাকার জন্য তার আকার বেশি বড় ছিল।

এ ধরনের গোখরা সাপ সাধারণত ৫ থেকে ৬ ফুট লম্বা হয়ে থাকে, এমনকী তারা ৮ ফুট লম্বাও হয়। কাজেই রাণীর মৃত্যুর এই প্রচলিত ব্যাখ্যা তারা অবাস্তব বলে নাকচ করে দিয়েছেন।

তারা আরো বলছেন খুবই অল্প সময়ের মধ্যে রাণীসহ দুজন দাসীর মৃত্যু ওই একই সাপের ছোবল থেকে সম্ভব নয়।

গ্রে বলছেন, ‘গোখরা সাপ শুধু আকারেই বিশাল নয়, পরপর তিনটি ছোবলেই বিষ উগরে মরণ কামড় দেওয়াও এধরনের সাপের আচরণ বর্হিভূত।’

তারা বলছেন গোখরা সাপসহ সব সাপই নিজেদের রক্ষা করার এবং শিকার করার জন্য বিষ তৈরি করে। কিন্তু ওই বিষ তারা জমিয়ে রাখে প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য। সূত্র: বিবিসি

Sharing is caring!

(Visited 1 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *