“এমন স্থানে একটি চাবুক ঝুলিয়ে রাখ, পরিবারের লোকেরা যাতে তা দেখতে পারে, কেননা এটা তাদের জন্য শৃংখলা।”

আসসালামুআলাইকুম!
আমরা অনেকেই অনেক সুন্নাহ বিষয় অবগত নই। যদি আমরা তা মেনে চলতাম আল্লাহ চাইলে আমরা আমাদের পারিবারিক সমস্যাগুলো এড়িয়ে চলতে পারতাম। এটি প্রায় বিলুপ্ত একটি সুন্নাহ! তবে, আজ থেকে ৩০-৪০ বছর আগেও সম্ভ্রান্ত পরিবারগুলোতে এর রেওয়াজ ছিল।

রাসূলুল্লাহ ﷺ বলেছেন, “এমন স্থানে একটি চাবুক ঝুলিয়ে রাখ, পরিবারের লোকেরা যাতে তা দেখতে পারে, কেননা এটা তাদের জন্য শৃংখলা।”
(আত্ তাবারানী : ১০/৩৪৪-৩৪৫)

শাস্তির যন্ত্রের দৃশ্যমানতা ঘরের সদস্যদের খারাপ আচরণ থেকে বিরত রাখতে সাহায্য করে কারণ তারা এর দ্বারা শাস্তি পেতে পারে। এ পদ্ধতি তাদেরকে সংশোধন করে এবং তাদেরকে সদাচরণে সাহায্য করে। এ বিষয়ে ইবনুল আম্বরী বলেন, ‘চাবুক পিটানোর জন্য নয়, কেননা কেউই সে আদেশ দেয়নি। পিতা ও স্বামী হিসেবে আপনাকে তাদের শৃংখলার বিষয় অবহেলা করা উচিত নয়।’ প্রহার কখনো শৃংখলার ভিত্তি হতে পারে না এবং এটা তখনই প্রয়োগ হতে পারে যখন এ ছাড়া আর কোন পন্থা বাকি থাকে না।

সাধারণত বিনা কারণে প্রহার করা অন্যায়। বাস্তবে আল্লাহর রাসূল ﷺ একজন মহিলাকে উগ্র লোকের সাথে বিয়ে বসতে নিষেধ করেছিলেন যেহেতু সে লাঠি বহন করে রাখত। বিপরীত পক্ষে যারা মনে করে প্রহার করা একেবারেই অন্যায় তাদের ধারণাও ভুল। এধরনের বিশ্বাস ইসলামী বিধানের সাথে বৈরী।

ঐ সকল জিনিস এড়িয়ে চলুন যা আপনার ঘরে শয়তানী কাজ আনয়ন করে।

Sharing is caring!

(Visited 1 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *