আল-আকসা মসজিদে জুম্মার নামাজ বাতিল করল ইসরাইলি পুলিশ

তেল আবিব: গোলাগুলির ঘটনার পর নিরাপত্তার অজুহাতে ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ শুক্রবার আল-আকসা মসজিদে প্রায় ৫০ বছর পর প্রথমবারের মতো জুম্মার নামাজ বাতিল করলো। এছাড়া ইসরাইলি পুলিশ আল-আকসা মসজিদ চত্বরে গুলি করে তিন ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে।

আল-আকসা মসজিদের সীমানায় ইসরাইলি পুলিশের সাথে বন্দুকধারীদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটে এই অভিযোগে জুম্মার নামাজ বাতিলসহ আশেপাশে এলাকা বদ্ধ করে দেয় ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ। ইসরাইলি পুলিশ দাবি করেছে যে, তাদের গুলিতে নিহত তিন ফিলিস্তিনি আল-আকসা মসজিদের সীমানায় তাদের উপর হামলা করেছিল এবং তাদের দুই জন সহকর্মীকে আহত করেছে।

জেরুজালেম পুলিশের জেলা কমান্ডার বলেন, ‘১৪ জুলাই শুক্রবার জুম্মার নামাজ আল আকসা মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে না।’

ইসরাইলি পুলিশ নিরাপত্তা জোরদারের অজুহাতে শত শত সেনা মোতায়েন করছে এবং জেরুজালেমের পুরানো শহরের প্রবেশদ্বারগুলোও বন্ধ করে দিচ্ছে।

১৯৬৭ সালে ইসরাইল পূর্ব জেরুসালেম দখল করে নেয়।

১৯৬৯ সালের আগস্টে মাইকেল রোহান নামক অস্ট্রেলিয়ার এক নাগরিক মসজিদে আগুন ধরিয়ে দেয়। ফলে প্রথমবারের মতো মুসলিমরা আল-আকসা মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করতে ব্যর্থ হয়।


আনাদোলু নিউজ এজেন্সি অবলম্বনে

 

Sharing is caring!

(Visited 1 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *